মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:১২ পূর্বাহ্ন

ভোলায় প্রকাশ্যে নিধন করা হচ্ছে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ

ভোলায় প্রকাশ্যে নিধন করা হচ্ছে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ

ভোলা প্রতিনিধি॥ নদী আর সাগর বেষ্টিত দ্বীপ জেলা ভোলার মেঘনা নদীতে সরকারি আইন অমান্য করে কারেন্ট জাল ও ব‌েহুন্দি জাল ব্যবহারে অবাধে নিধন করা হচ্ছে বিভিন্ন প্রজাতির পোনা মাছ। এতে জাটকা ও ডিমওয়ালা বিভিন্ন প্রজা‌তের মাছের পোনা সহ অন্যান্য জলজ প্রাণী অকালে মারা যাওয়ায় জীববৈচিত্র পড়েছে হুমকিতে। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ভোলা সদর উপজেলার পূর্ব ইলিশা ইউনিয়নের ভাংতির খাল সংলগ্ন স্থানীয় প্রভাবশালী ফারুক বেপারি, সাজল বেপারি ও হাছান বেপারির নেতৃত্বে নদীর মাঝে নিষিদ্ধ বেহুন্দি জাল দিয়ে অবৈধভাবে শিকার করা হচ্ছে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ। ফ‌লে বিলুপ্ত হ‌চ্ছে প্রায় ২৫০ প্রজাতির মাছ। মাছশুন্যকরে তুলছে নদীগুলোকে। বৃহস্পতিবার সকালে ইলিশা ভাংতির খাল এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, নদীর মাঝে জেলেরা বেহু‌ন্দি জাল ও কারেন্ট জাল পেতে বি‌ভিন্ন প্রজা‌তের ছোট ছোট ‌পোনা মাছ ও মা‌ছের রেনুসহ জালে ধরা পড়‌ছে জাটকা, ডিমওয়ালা পুটি, টেংরা, কই, বেলা, বাইলা, ব্যাঙ, সাপ ও অন্যান্য জলজ প্রাণী। ফ‌লে অ‌চি‌রেই ক‌মে যা‌বে বি‌ভিন্ন প্রজা‌তির মাছ, বন্ধ হ‌য়ে যা‌বে প্রকৃ‌তির জলজ প্রাণীর উৎপাদন। স্থানীয় একাধিক ব্যাক্তি জানান, কতিপয় প্রভাবশালী দালাল জেলেদের প্ররোচনায় এক প্রকার জোর পূর্বক কারেন্ট জাল, বেহু‌ন্দি জাল ও মশারী জাল দিয়ে এসব পোনা ও রেনু অবা‌ধে নিধন করা হচ্ছে। এদিকে মেঘনা পাড়ের জেলেরা বলেন, নদীতে বেহুন্দি ও কারেন্ট জালের ব্যবহার বন্ধ করতে হলে এসব জা‌লের উৎপাদান বন্ধ করতে হবে। কিন্ত তা না করে নদীতে এসে জেলেদের ধাওয়া করে জাল পুড়িয়ে ধ্বংস করে এবং জেল জরিমানা করা হচ্ছে। এবিষয়ে জেলা মৎস্য কর্মকর্তা আজহারুল ইসলাম জানান, ভাংতির খাল এলাকায় বেহুন্দি জাল দিয়ে অবৈধভাবে মাছ নিধন হচ্ছে বিষয়টি আমিও শুনেছি। অতি দ্রুতই সেখানে অভিযান চালাবো। বিষয়টি কোস্ট গার্ডকেও জানানো হয়েছে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2012
Design By MrHostBD