বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ০৩:৫৫ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
ভোলায় বাজারগুলোতে ঈদের আমেজ!

ভোলায় বাজারগুলোতে ঈদের আমেজ!

ভোলা প্রতিনিধি॥

ভোলায় করোনাভাইরাস নিয়ে প্রশাসনের সচেতনামুলক নির্দেশনা উপেক্ষা করে সদর উপজেলার বিভিন্ন হাটবাজারে দোকানপাট খোলা রেখে জনসমাগম সৃস্টি করছে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা। এ কারনে হাটবাজার গুলোতে জনসাধারনের সমাগমও আগের মত রয়ে গেছে। প্রশাসনের কঠোর নজরদারি না থাকায় ব্যাবসায়ী আর সাধারন জনগন সচেতনতার বিষয়টি গায়ে লাগাচ্ছেনা বলে অভিযোগ সচেতন মহলের। সাধারণ ছুটিতে ঢাকাসহ সারাদেশ থেকে স্থানীয়রা বাড়ি ফেরায় বাজারে লেগেছে ঈদের আমেজ। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, উপজেলার পরানগঞ্জ বাজার, পাঙ্গাশিয়া বাজার, তেমাথা, হাওলাদার বাজার, জনতা বাজার, ক্লোজার বাজার, শান্তির হাট, রাস্তার মাথা, ব্যাংকের হাট, ভেলুমিয়া বাজার, রতনপুর বাজারে লোক সমাগমের চিত্র একই রকম। এসব হাট বাজারের সবধরনের অধিকাংশ দোকানপাট খোলা রাখছে ব্যবসায়ীরা। সকালে স্থানীয় হাট-বাজারগুলোতে লোকজন কিছুটা কম হলেও বিকালে মেলে ঈদের আমেজ। শুক্রবারও সকাল ও বিকালে ভেলুমিয়া ও ব্যাংকের হাট বাজারে এ চিত্র দেখা গেছে। কেউ কেউ প্রশাসনের টহলের খবর রেখে এবং আবার কেউ দোকানের অর্ধেক সাঁটার খোলা রেখে কৌশলে ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান খোলা রাখছেন। উপজেলা প্রশাসন সহ স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানরা গত কয়েকদিন ধরে নিয়মিত মাইকিং করে সবাইকে সচেতন হওয়ার জানান দিলেও এসবের কোন তোয়াক্কা করছেননা অনেকেই। তাছাড়া জরুরী প্রয়োজন ছাড়া বাইরে ঘোরাফেরা না করার অনুরোধ জানানো হলেও বাস্তবে তা কোন কাজে আসছেনা। এ ছাড়া সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান টানা দশ দিনের সাধারন ছুটি ঘোষণা করায় এবং দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ইতিমধ্যে বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বিভিন্ন স্থানে অধ্যায়নরত শিক্ষার্থী ও কর্মজীবীরা ঢাকাসহ বিভিন্ন শহর ছেড়ে গ্রামে এসেছেন। তারাও অনায়াসেই রাস্তা ঘাটে কিংবা হাটবাজারে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। বাজারে দোকানে বসিয়েছেন ঈদের ন্যায় আড্ডা। এ ব্যাপারে পশ্চিম ইলিশা ইউপি চেয়ারম্যান গিয়াসউদ্দিন আহমদে জানান, করোনা ভাইরাসের সংক্রমনের হাত থেকে সুরক্ষা পেতে সচেতন করতে এবং জরুরী প্রয়োজন ছাড়া লোকজনকে হাটবাজার বা রাস্তাঘাটে ঘোরাফেরা না করার জন্য মাইকিং করাচ্ছি এবং আমি নিজে হাট-বাজার ঘুরে ব্যবসায়ীদের জনসমাগম সৃস্টি না করার জন্য পরামর্শ দিচ্ছি। ভোলা সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিজানুর রহমান জানান, করোনাভাইরাস সম্পর্কে জনগণকে সচেতন করার জন্য উপজেলা প্রশাসন, পুলিশ, স্বাস্থ্য বিভাগ এবং স্থানীয় জনপ্রতিনিধি মিলে সার্বিক ভাবে কাজ করে যাচ্ছি। এব্যাপারে যার যার সেইভটির জন্য নিজে থেকে সচেতন হওয়ার পরামর্শ এ কর্মকর্তার।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2012
Design By MrHostBD