বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ০৪:০০ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বামনায় হাসপাতালেই ভূরিভোজ

বামনায় হাসপাতালেই ভূরিভোজ

বরগুনা প্রতিনিধি ::

বরগুনার বামনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মালামাল ক্রয়ের দরপত্র উম্মুক্ত সভা শেষে দুপুরে ভূরিভোজ করানোর অভিযোগ উঠেছে। আজ মঙ্গলবার দুপুরে বামনা হাসপাতালের করোনা রোগীদের জন্য নির্ধারিত আইসোলেশন কক্ষের নিচের তলায় এ ভোজ অনুষ্ঠিত হয়। অভিযোগে জানা গেছে, বামনা হাসপাতালের জরুরী মালামাল ক্রয়ের জন্য দরপত্র আহবান করা হয়। আজ মঙ্গলবার ওই দরপত্র উম্মুক্তের দিন ছিলো। পরে এ উপলক্ষে জেলা ও স্থানীয় পর্যায়ের ২৪ জন কর্মকর্তা ও কর্মচারী দুপুরে ভূরিভোজে অংশ নেন। বর্তমান করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের মধ্যে যেখানে সরকার সকল প্রকার সামাজিক কর্মকান্ড বন্ধ করে দিয়েছেন সেখানে খোদ হাসপাতালের চিকিৎসক ও কর্মচারীরা একসঙ্গে বসে কিভাবে ভূরিভোজে অংশ নেন। এ ছাড়া বরগুনা সদর হাসপাতালে করোনাভাইরাস সন্দেহে একজন বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন। সেই হাসপাতাল থেকে দুজন কর্মকর্তাও এ ভূরিভোজে অংশ নেন। জানা গেছে, বামনা হাসপাতালের ৫ জন চিকিৎসক, ১২ জন কর্মকর্তা ও ৭ জন চতুর্থ শ্রেনির কর্মচারী অংশ নেন এই ভূরিভোজে। হাসপাতালের কর্মকর্তাদের এ ভূরিভোজের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পরে। এতে জনমনে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। ভিডিওতে দেখা গেছে, কোন প্রকার সামাজিক দুরত্ব বজায় না রেখেই তারা ভূরিভোজ করছেন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন কর্মচারী জানান, দেশব্যপী এমন পরিস্থিতির মধ্যে হাসপাতালের কর্মকর্তাদের এমন কর্মকান্ড জনগনের কাছে প্রশ্নবিদ্ধ। এ ব্যপারে বামনা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. মনিরুজ্জামান ভূরিভোজের বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, মালামাল ক্রয়ের দরপত্র খোলার পরে বাজারে কোন হোটেল খোলা না থাকার কারনে বরগুনার দুজন চিকিৎসক ও আমরা দুই থেকে তিনজন হাসপাতালের ভিতরেই রান্না করে খেয়েছি।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2012
Design By MrHostBD