সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:৫৮ অপরাহ্ন

রাজাপুরে স্বামীকে বাঁচাতে ডিআইজির কাছে নালিশী অভিযোগ

রাজাপুরে স্বামীকে বাঁচাতে ডিআইজির কাছে নালিশী অভিযোগ

রাজাপুরে স্বামীকে বাঁচাতে ডিআইজির কাছে নালিশী অভিযোগ
রাজাপুরে স্বামীকে বাঁচাতে ডিআইজির কাছে নালিশী অভিযোগ

রাজাপুর প্রতিনিধি:
ঝালকাঠি জেলার রাজাপুর উপজেলার চাড়াখালী এলাকায় গরু চুরি ধামাচাপা ও চুরির ঘটনায় মামলা থেকে স্বামীকে বাঁচাতে বরিশাল রেঞ্জের ডিআইজি বরাবর রাজাপুর থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক (এসআই) ও গরু চুরি হওয়ার অভিযোগের তদন্ত কর্মকর্তা শাহ আলমের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন সুমা বেগম। সুমা বেগম উপজেলা চাড়াখালী গ্রামের কবির হোসেন হাওলাদারের স্ত্রী। সরোজমিনে গিয়ে জানা যায়, গত ১৩ এপ্রিল চাড়াখালী এলাকা থেকে স্থানীয় বাবুল দাড়িয়া নামে এক কৃষকের ১টি গরু চুরি হয়। এ ঘটনায় বাবুল দাড়িয়া সুমা বেগমের স্বামী কবির হোসেন ও শশুর সোহরাব হাওলাদারকে আসামী করে রাজাপুর থানা অফিসার ইনচার্জ বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অফিসার ইনচার্জ বিষয়টি এসআই শাহ আলমকে তদন্তের দায়িত্ব দেন। এসআই শাহ আলম বিষয়টি তদন্তের জন্য ঘটনাস্থলে যান এবং স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের সাথে নিয়ে অভিযুক্ত কবিরের খোজে তার বাড়িতে যান। এ সময় কবির বাড়িতে না থাকলে তার স্ত্রী সুমার কাছে কবিরের ব্যবহারিত মোবাইল নাম্বারটি চান তদন্তকারী এই কর্মকর্তা। তখন সুমা বেগম তার স্বামীর মোবাইর নাম্বার দিতে অস্বিকৃতি জানালে তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই শাহ আলম কবিরের বাড়ী ত্যাগ করেন। কিন্তু সুমা বেগম তার স্বামী ও শশুরকে গরু চুরির মামলা থেকে বাচাঁতে ভিন্ন কৌশল অবলম্বন করেন। তিনি কিছু কুচক্রি মহলের ইন্ধনে তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই শাহ আলমকে হয়রানি করার উদ্দেশ্যে ডিআইজি বরাবর অভিযোগ দায়ের করেন এবং স্থানীয় কিছু সাংবাদিকদের কাছে মিথ্যা তথ্য দিয়ে রিপোর্ট করান।
এ বিষয়ে সুমা বেগমের কাছে জানতে চাইলে তার মুঠোফোনে কল দিলে মোবাইল নাম্বার বন্ধ পাওয়া যায়।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2012
Design By MrHostBD